??????? ?????? ২১ নভেম্বর, ২০১৯ ০৩:০২

"অন্যায় না করে এত বড় কষ্টের দায় কেন নিতে হচ্ছে"

ডেস্ক রিপোর্ট ।। 

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সদ্য বিদায়ী সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন, সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী এবং সংগঠনটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলমের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

ছাত্রলীগের সাবেক তিন নেতার মধ্যে সিদ্দিকী নাজমুল আলম বর্তমানে যুক্তরাজ্যে বসবাস করছেন। তার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু হওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে গত সোমবার (১৮ নভেম্বর) সামাজিকমাধ্যম ফেসবুকে বলেছেন, ‘ছাত্রলীগের দায়িত্ব ছেড়েছি প্রায় চার বছর। এতদিন যাবত দেশের বাহিরেই থাকি, মাঝখানে ছাত্রলীগের সম্মেলনে এবং জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় সব মিলিয়ে তিন/চার মাস দেশে ছিলাম। দায়িত্বে থাকার সময় টেন্ডার, চাঁদা, তদবির, কমিটি বাণিজ্য কোনোটিই করিনি। তারপরেও দুদক অনুসন্ধান চালাচ্ছেন অবৈধ সম্পদের খোঁজে। কোনো অন্যায় না করে এত বড় কষ্টের দায় কেন নিতে হচ্ছে- জানি না। কষ্ট পাচ্ছি না, নিজের প্রতি ঘেন্না হচ্ছে।’

‘তবে কি ইসমাঈল চৌধুরী সম্রাটের সাথে আমার রাজনৈতিক সম্পর্ক ছিল- এই কারণেই আমার শাস্তি? সম্রাট ভাই আমাকে আদর করত, স্নেহ করত- রাজনীতির মাঠেই তার সাথে আমার সম্পর্ক হয়েছিল। সম্রাট ভাইয়ের সাথে সম্পর্ক ছিল এই কারণে দুদক আমার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান চালালে অনেক এমপি, মন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় নেতাদের তো তাহলে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হবে। কারণ, প্রায় সব্বাই দুধে ধোয়া তুলসিপাতা।’