??????? ২৪ নভেম্বর, ২০২২ ০৪:৪৯

মেহেদীর রঙে রাঙানো স্বামী ও স্ত্রীর সুইসাইড নোট

জেলা প্রতিনিধি: হাতে মেহেদি রঙে ঝলমল করছে সুইসাইড নোট। এমন অবস্থায় একই সঙ্গে স্বামী ও স্ত্রী দুজনের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) সকাল ৯ টার দিকে ঝিনাইদহের সদর উপজেলার হাটবাকুয়া গ্রামের মাঠ থেকে তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। 

স্থানীয়রা জানান,মৃত রমজান হোসেন (২০) জেলা সদরের তালতলা হরিপুর গ্রামের চমু শেখের ছেলে এবং মুক্তা খাতুন (১৮) হরিনাকুন্ডু উপজেলার বিন্নি গ্রামের গোলাম হোসেনের মেয়ে। রমজান জেলা শহরের হামদহ এলাকার একটি মোটর গ্যারেজে কাজ করতেন। প্রায় দুই মাস আগে রমজান প্রেমের সম্পর্কের জেরে পরিবারের অমতে মুক্তাকে বিয়ে করেন। এরপর থেকে উভয় পরিবারের লোকজন তাদের সম্পর্ক মেনে নিচ্ছিল না। এ নিয়ে তাদের ও উভয় পরিবারের মধ্যে পারিবারিক বিরোধ চলছিল। 

নিহতদের পরিবার সূত্রে জানা যায়, সকালে মুক্তা খাতুনকে তার বাবার বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল। রমজান ও মুক্তা গতরাত দুইটার দিকে বাড়ি থেকে বের হন। পরে সকালে বাড়ির পার্শ্ববর্তী হাটবাকুয়া গ্রামের মাঠের একটি মেহগনি গাছ থেকে ওড়না প্যাঁচানো তাদের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ঝিনাইদহ নারিকেলবাড়িয়া পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ বিল্লাল হোসেন জানান, পারিবারিক কলহের জেরে এই আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। মরদেহ দুইটি ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে পরিষ্কার হওয়া যাবে হত্যা নাকি আত্মহত্যা। 

আমাদের কাগজ//জেডআই