রাজনীতি ১৭ অক্টোবর, ২০২০ ১১:০৮

আওয়ামী লীগ প্রার্থী মনিরুল ঢাকা-৫ উপনির্বাচনে ভোট দিলেন

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা- আসনের উপনির্বাচনে ভোট দিলেন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মো. কাজী মনিরুল ইসলাম। আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে আজ শনিবার সকাল ১০টার দিকে ভোট দেন তিনি। এরপর আমুলিয়া মাদ্রাসার ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, আমি নিজে ভোট দিয়েছি। ভোট অত্যন্ত সুষ্ঠু হচ্ছে।

ভোটার উপস্থিতি নিয়ে মনিরুল ইসলাম বলেন, আমি পাঁচটি কেন্দ্র পরিদর্শন করেছি। ভোটার উপস্থিতি সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরো বাড়বে।

এদিকে, ভোট শুরু হলেও ধানের শীষ প্রতীকের এজেন্টদের অনেক কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করছেন বিএনপির প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ।

বিএনপি প্রার্থীর মিডিয়া সেলের প্রধান মাহমুদ হাসান বলেন, সকাল থেকেই বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে আমাদের এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে। সরকারদলীয় প্রার্থীর লোকজন কেন্দ্রের ভেতরে বাইরে অবস্থান নিয়ে ভোটার প্রবেশ আমাদের এজেন্ট ঢুকতে বাধা দিচ্ছে।

বিএনপির নেতাকর্মীদের এমন অভিযোগের বিষয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মনিরুল বলেন, বিএনপি প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ শুরু থেকে নালিশ দিয়ে যাচ্ছেন, তাঁর কোনো ব্যানার-ফেস্টুন নেই, কোনো প্রচার নেই। তিনি নালিশ পার্টির লোক, শুধু নালিশ করেই যাচ্ছেন।

ঢাকা- নওগাঁ- আসনের উপনির্বাচনে আজ সকাল ৯টায় শুরু হওয়া এই ভোট বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে চলবে। দুই আসনেই ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট নেওয়া হচ্ছে।

ঢাকা- আসনের শামসুল হক খান স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ধলপুর প্রাথমিক বিদ্যালয় যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে ভোটাররা অল্প অল্প করে আসতে শুরু করেছেন। তবে ভোটারদের উপস্থিতি কম।

এর আগে ভোটের মাঠের পরিবেশ নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন ঢাকা- নওগাঁ- আসনের বিএনপির দুই প্রার্থী। তবে তাঁরা দুজনই শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন।

অন্যদিকে, ওই দুই আসনের আওয়ামী লীগের দুই প্রার্থীই পাল্টা অভিযোগ জানিয়ে বলেছেন, বিএনপি ভোটকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে ভোটের পরিবেশ নষ্ট করতে নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। কারণ, তাঁরা ভোটের মাঠে ততটা সক্রিয় নন।

সুষ্ঠু শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে দুই আসনের ভোটেই বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) মোতায়েন করেছে ইসি। তবে সার্বিক দিক বিবেচনায় নিয়ে ঢাকা- আসনে অতিরিক্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। ভোটকে কেন্দ্র করে মধ্যরাত থেকে গণপরিবহনে সীমিত নিষেধাজ্ঞা কার্যকর রয়েছে। বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে শনিবার মধ্যরাত পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকায় মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দেয় ইসি।