মুক্তিযুদ্ধ ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০৮:৫৯

কুড়িগ্রামের হাতিয়া গণহত্যা দিবস আজ

ডেস্ক রিপোর্ট।। 

উত্তরাঞ্চলের সবচেয়ে বড় গণহত্যা সংঘটিত হয় কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নে।  

১৯৭১ সালের ১৩ই নভেম্বর পাকিস্তানি বর্বর বাহিনীর গণহত্যায় প্রাণ হারায় ৬৯৭ জন নিরীহ গ্রামবাসী।

এদিন রাতে হাতিয়া অনন্তপুর গ্রামে মুক্তিবাহিনীর অবস্থান করছে, এমন তথ্যে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তার দোসররা সেখানে স্বশস্ত্র অবস্থান নেয়। ভোর থেকে বাগুয়া অনন্তপুর, রামখানা, মন্ডলেরহাট, নয়াদাড়া, নীলকণ্ঠ ও দাগারকুঠি গ্রামের নারী-পুরুষদের ধরে এনে দাগারকুটিতে সারিবদ্ধ দাঁড় করিয়ে গুলি চালায়। মৃত্যু নিশ্চিত করতে বেয়োনেট দিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে ক্ষত-বিক্ষত মরদেহগুলোকে আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়া হয়।

পরদিন এলাকাবাসী দাগারকুটি গ্রামেই ৬৯৭ জন নিরীহ গ্রামবাসীর বিক্ষত দেহ সংগ্রহ করে গণকবর দেয়। স্বাধীনতার ৪৮ বছরেও তাদের মেলেনি রাষ্ট্রীয় কোন স্বীকৃতি, হত্যাকাণ্ডের শিকার পরিবারগুলোও পায়নি স্বজন হত্যার বিচার।