অর্থ ও বাণিজ্য ২৫ অক্টোবর, ২০১৯ ০৫:১৮

রাজধানীতে সপ্তমবারের মতো শুরু হচ্ছে 'লেদারটেক বাংলাদেশ ২০১৯'

ডেস্ক রিপোর্ট ।।

চামড়া ও চামড়াজাত শিল্পের উজল ভবিষ্যতের জন্য সর্বাধুনিক টেকশই প্রযুক্তি তুলে ধরতে আগামী ৩১ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে এ শিল্পের সবচেয়ে বড় ট্রেড শো 'লেদারটেক বাংলাদেশ ২০১৯'। রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় সপ্তমবারের মতো আয়োজিত তিনদিনব্যাপী এ ট্রেড শোতে বাংলাদেশের চামড়া, চামড়াজাত পণ্য এবং ফুটওয়্যার শিল্পের জন্য প্রয়োজনীয় মেশিনারি, কম্পোনেন্ট, ক্যামিকেল এবং অ্যাকসেসরিজ সংশ্লিষ্ট আন্তর্জাতিক ও স্থানীয় প্রযুক্তি তুলে ধরা হবে।

চামড়া খাতে শীর্ষ ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, এমপি 'লেদারটেক বাংলাদেশ ২০১৯ এর উদ্বোধন করবেন।।

একই সাথে লেদারগুডস অ্যান্ড ফুটওয়্যার মেনুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (LFMEAB)।

তৃতীয়বারের মতো আয়োজন করছে বাংলাদেশ লেদার ফুটওয়্যার অ্যান্ড লেদারগুডস ইন্টারন্যাশনাল সোর্সিং শো-২০১৯ (BLLISS 2019)।

বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) রাজধানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনে ট্রেড শোর আয়োজক সংস্থা আসক ট্রেড অ্যান্ড এক্সিবিশন প্রাইভেট লিমিটেড জানায়, আইসিসিবি’র ৫ টি হলে আয়োজিত আন্তর্জাতিক এ প্রদর্শনীতে বিশ্বের ২০টি দেশের ৩০০টিরও বেশি প্রতিষ্ঠান ফিনিশড লেদার, ট্যানিং লেদারের জন্য মেশিনারি, ম্যানুফ্যাকচারিং ফুটওয়্যার, চামড়াজাত পণ্যসহ এর সংশ্লিষ্ট প্রযুক্তি উপস্থাপন করবে।

অংশগ্রহণকারী পযাভিলিয়নগুলোর একটি বড় অংশ জুড়ে থাকবে ভারতের সিএলই এবং আইএফসিএমমএএর প্যাভিলিয়ন চীনের ওয়েনঝেও অ্যান্ড জিনজিয়াং এসোসিয়েশন এর প্যাভিলিয়ন এবং পাকিস্কান ট্যানারস এসোসিয়েশনে (PTA) এক্সকুসিভ ফিনিশড লেদার প্যাভিলিয়ন ছাড়াও বাংলাদেশ, কোরিয়া, তুরস্ক, মিশর, ভিয়েতনাম, যুক্তরাজ্য, শ্রীলতা, ইতালি, জামানি, সিঙ্গাপুর, জাপান, তাইওয়ান, হংকংসহ প্রায় ২০ টি দেশের প্রায় তিন শতাধিক প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করবে।

সংবাদ সংস্থায় জানানো হয়, "বর্তমান সরকার চামড়া শিল্পের সমস্যা খুজে বের করতে এবং এর উন্নয়নের উপায় নির্ধারণে উচ্চ পর্যায়ের টাস্কফোর্স গঠন করেছে। এছাড়াও সরকার সাভার ট্যানারি ইন্ডাস্ট্রিয়াল এস্টেট (এসটিআইই) কে আন্তর্জাতিক সনদ অর্জনের জন্য পর্যবেক্ষণ করতে আন্তর্জাতিক সংস্থা লেদার ওয়ার্কিং গ্রুপকে এদেশে নিয়ে আসার পরিকল্পনা করছে।

দেশের পরিবেশ আইন এবং সঠিক নিয়ম-কানুন মেনে চামড়া খাতকে আন্তর্জাতিক কম্প্লায়েন্স অর্জনে একটি নীতিমালাও গঠন করে এ টাস্কফোর্স।

আসক ট্রেড অ্যান্ড এক্সিবিশন প্রাইভেট লিমিটেড এর পরিচালক সেলিম বি বলেন, টানা সপ্তমবারের মত অনুষ্ঠিতব্য লেদারটেক বাংলাদেশের ব্যক্তি বিবেচনায় চামড়া খাতের জন্য এটি এখন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ টেকনোলজি এবং সোর্সিং টেক শো-তে পরিণত হয়েছে।

ধারাবাহিক বিকাশ এবং সরকারের সার্বিক সহযোগিতা আর অনুপ্রেরণায় চামড়া খাত ২০২১ সালের মধ্যে ৫ বিলিয়ন ডলারে পণ্য রপ্তানির লক্কঘ্যমাত্রা অর্জন করতে যাচ্ছে। এই লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে চামড়া খাতের বিনিয়োগের পরিমাণ ও পরিসর যেমন বাড়ছে তেমনি বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার ও বাড়ছে। এ ট্রেড শো টেকনোলজি এবং মেশিনারি, ফিনিশড লেদার সোর্সিং এর জন্য এ
শিল্পের বিস্তার এবং আধুনিকায়নের জন্য প্রয়োজনীয় সবকিছু তুলে ধরবে।