সোশ্যাল মিডিয়া ১০ অক্টোবর, ২০১৯ ১১:৫৪

অনলাইন থেকে গায়েব ফাহাদের ভাইয়ের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট!

ডেস্ক রিপোর্ট।।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) নিহত শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের ছোট ভাই আবরার ফায়াজ কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ এনে স্ট্যাটাস দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর থেকে তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

বুধবার (৯ অক্টোবর) রাত থেকে তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের বিরুদ্ধে দেওয়া পোস্টের কিছুক্ষণের মধ্যেই হাজার হাজার লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার হয়ে যায়।

কোনো ধরনের হুমকি বা কোনো চাপের কারণে তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হয়েছে কিনা- তা এখনো জানা যায় নি। তবে বিশ্বস্তসূত্রে খবর পাওয়া গিয়েছে যে তিনি নিজেই ফেসবুক একাউন্ট বন্ধ করেছেন।

এর আগে আবরার ফায়াজ তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে বলেন, আজকে Additional SP (উনি বলেন উনার নাম মোস্তাফিজুর রহমান) কোথা থেকে সাহস পায় আমার গায়ে হাত দেওয়ার? আমার ভাবিকে মারছে? নারীদের গায়ে নিষ্ঠুরভাবে হাত দেয়? এই চাটুকারদের কি বিচার হবে না? তিনি কালকে ২ মিনিটে জানাজা শেষ করতে বলেন কীভাবে? যেই ছাত্রলীগ মারল তারা কেন সর্বত্র? আমার বাবাকে হুমকি দেওয়া হয়েছে আপনার আর এক ছেলে ঢাকা থাকে আপনি কি চান তার ক্ষতি হোক..... গ্রামে বলা হয়েছে কেউ কিছু করলে ১ সপ্তাহ পর গ্রামের সব পুরুষ জেলে থাকবে। বিচার চাই...আমি বিচার চাই..... নয়তো আমাকে মেরে ফেলুন বাবা-মা কষ্ট একবারে পাবে।

প্রসঙ্গত, রবিবার (৬ অক্টোবর) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরে বাংলা হলে আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। নিহত ফাহাদ বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (১৭তম ব্যাচ) শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি শের-ই বাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন।