বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি ২৮ মার্চ, ২০২১ ০৩:২৯

নতুন ফিচার নিয়ে টেলিগ্রাম

টেক ডেস্ক

ক্রমেই জনপ্রিয় হচ্ছে টেলিগ্রাম। পাশাপাশি হোয়াটসঅ্যাপ প্রাইভেসি পলিসিতে পরিবর্তনের সিদ্ধান্তের পর এই অ্যাপে ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়েছে অনেকগুণ। অসংখ্য মানুষ হোয়াটসঅ্যাপ ছেড়ে এই অ্যাপ ব্যবহার শুরু করেছেন।

ব্যবহারকারীদের কথা মাথায় রেখে তথ্য সুরক্ষার পাশাপাশি একাধিক নতুন ফিচার এনেছে সংস্থা। এবার আরো পরিবর্তন এনেছে টেলিগ্রাম। চালু হল ভয়েস চ্যাট ২.O। যাতে যে কেউ ভয়েস চ্যাটের সুবিধা পাবে। এক্ষেত্রে কোনো সীমাবদ্ধতা থাকবে না।

এর আগে এই ধরনের চ্যাটের সুবিধা ক্লাব হাউজে পাওয়া গিয়েছিল। টেলিগ্রামের নতুন এই ফিচারে যে কেউ ভয়েস মেসেজ পাঠাতে পারবে। যে কাউকে পাঠাতে পারবে। এতে কোনো সীমাবদ্ধতা থাকবে না। এই ভয়েস চ্যাট ২.O ফিচারের সঙ্গেই আরও কয়েকটি সুবিধে দিচ্ছে এই অ্যাপটি।

প্রথমত, কোনো পাবলিক গ্রুপের অ্যাডমিন অনায়াসেই অডিও বেসড চ্যাট শুরু করতে পারেন। কতজনের মধ্যে সেই চ্যাট পৌঁছাতে পারে, তার কোনো সীমাবদ্ধতা নেই। অর্থাৎ, গ্রুপে যত সদস্যই থাক না কেনো, প্রত্যেকেই সেই ভয়েস চ্যাট শুনতে পাবে।

এখানেই শেষ নয়, এই ভয়েস চ্যাটের যে ভয়েস রেকর্ডটি পাঠানো হবে, তা রেকর্ড করা যাবে। যাতে কেউ সেই মেসেজ না শুনতে পেলে বা সেই সময়ে উপস্থিত না থাকলেও সেই মেসেজ পেতে পারে। এক্ষেত্রে সেভড মেসেজের অপশন পাওয়া যাবে। সেভ করলেই তা থেকে যাবে।

এ ছাড়াও ক্লাবহাউজের মতো রেইজ হ্যান্ড বা হাত তোলার অপশনও রাখা হচ্ছে। যাতে অডিও সংলাপ চলাকালীন কোনো প্রশ্ন থাকলে তা জিজ্ঞাসা করা যায়। এবং যিনি কথা বলছেন, তিনি সহজে ওই ব্যক্তিকে চিনতে পারেন।

ওয়ার্ক ফ্রম হোম চালু হওয়ায় এই ভিডিও বা অডিও মিটিংয়ের প্রবণতা বেড়েছে এবং এটি যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। এই পরিস্থিতিতে মিটিং লিঙ্কসহ একাধিক জিনিসের সঙ্গে মানুষের নতুন করে পরিচয় হয়েছে।

সেই সূত্র ধরেই টেলিগ্রাম-ও যিনি কথা বলছেন এবং যাদের উদ্দেশে বলছেন, তাদের জন্য আলাদা আলাদা লিঙ্ক তৈরি করার ব্যবস্থা করেছে। এই লিঙ্কগুলো অন্যান্য গ্রুপের সঙ্গেও শেয়ার করা যাবে।

এই নতুন ফিচারগুলো ছাড়াও টেলিগ্রাম সম্প্রতি ক্যানসেল ফওয়ার্ডিং মেসেজের অপশন এনেছে। যাতে কোনো ফরওয়ার্ড করা মেসেজ সহজেই ক্যানসেল করা যায়।