লাইফ স্টাইল ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৮:২৩

রাতের খাবার আগে খাওয়ার উপকারিতা

লাইফস্টাইল ডেস্ক

চিকিৎসাবিদ পুষ্টিবিদদের মতে, রাতে আগে খাবার খাওয়া শরীরের জন্য ভালো। এতে ওজন শরীর সুস্থ থাকে।পুষ্টিবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে রাতে আগে খাবার খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে জানানো হল।

ওজন নিয়ন্ত্রণ: রাতে আগে খাবার খাওয়ার পেছনে সবচেয়ে বড় প্রেষণা হল ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকা। বিশেষজ্ঞদের মতে, সন্ধ্যা থেকে ৭টার মধ্যে খাবার খাওয়া হলে কম ক্যালরি গ্রহণ করা হয় এবং শরীর তা সঠিকভাবে ব্যবহার করার সুযোগ পায়।

স্থূলতার ঝুঁকি হ্রাস: রাতে দেরিতে খাওয়া হলে তা প্রয়োজনীয় শক্তির জন্য ব্যবহার করার সুযোগ থাকেনা ফলে তা শরীরে চর্বি হিসেবে জমতে থাকে। নিয়মিত রাতে দেরিতে খাওয়া হলে নিয়মিত ক্যালরি জমতে থাকে ফলে স্থূলতার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়।

ক্যান্সারের ঝুঁকি হ্রাস: গবেষণায় দেখা গেছে, রাতে ঘুমাতে যাওয়ার কমপক্ষে দুই ঘণ্টা আগে রাতের খাবার খাওয়া উচিত। পুরুষের ২৬ শতাংশ প্রোস্টেট ক্যানসার নারীদের ১৬ শতাংশ স্তন ক্যানসারের ঝুঁকি কমানোর জন্য রাতে তাড়াতাড়ি খাবার খাওয়া জরুরি।

মন ভালো রাখে শক্তি বাড়ায়: রাতে তাড়াতাড়ি খাবার খাওয়া হলে রক্তে শর্করার মাত্রা ঠিক থাকে, যা শরীর খারাপ অস্বস্তির অনুভূতি থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তাছাড়া রাতে তাড়াতাড়ি খাবার খাওয়া হলে ঘুমাতে যাওয়ার আগে বেশি শক্তি কার্যক্ষমতা লাভ করা যায়।

হজমে সহায়তা: ঘুমের আগ মুহূর্তে খাবার খাওয়া হলে তা ঠিক মতো হজম হয় না। ফলে অ্যাসিড সৃষ্টি, গ্যাস, ফোলাভাব বা পেটে ব্যথা অনুভূত হতে পারে। এসব সমস্যা দূর করতে খাওয়া ঘুমের মাঝে যথেষ্ট ব্যবধান থাকা উচিত।

ভালো ঘুম: ঘুমের কাছাকাছি সময়ে খাবার খাওয়া হলে ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে। ঘুমালে হজমক্রিয়া সচল থাকে, যা গভীর ঘুম বা অনিদ্রা অস্থিরতাকে প্রভাবিত করে। দেরিতে খাওয়া হলে তা হজমে ব্যাঘাত সৃষ্টি করে ঘুমে ব্যাঘাত ঘটায়।

হৃদযন্ত্র উন্নত রাখা: যারা রাতে দেরিতে খায় তারা সম্ভবত বেশি খাবার খান। দেরিতে খাওয়ার কারণে ক্যালরি খরচ হয় কম এবং তা ট্রাইগ্লিসারাইডনামক ফ্যাটি অ্যাসিডে রূপান্তরিত হয় যা হৃদরোগের স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায়। রাতের খাবার আগে খাওয়া হলে ট্রাইগ্লিসারাইড গঠিত হওয়ার ঝুঁকি হ্রাস পায়।