জাতীয় ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৮:২২

ফায়ার ফাইটারদের প্রশিক্ষণে মার্কিন সেনাবাহিনী

ডেস্ক রিপোর্ট

দেশের ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের কর্মীদের পেশাগত কাজের জন্য আন্তর্জাতিকমানের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে মার্কিন দূতাবাস। দূতাবাসের সিভিল মিলিটারি সাপোর্ট এলিমেন্ট (সিএমএসই)-এর উদ্যোগে রাজশাহীতে চার দিনব্যাপী এই প্রশিক্ষণ শেষে বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সনদ দেওয়া হয়।

বন্ধুত্বপূর্ণ অংশীদারত্বের মাধ্যমে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়নের লক্ষ্যেই এমন উদ্যোগ নিয়েছে মার্কিন দূতাবাস।

প্রশিক্ষণে দুর্যোগকালীন পরিস্থিতিতে স্বল্পসময়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ক্ষতিগ্রস্তদের দ্রুত উদ্ধারের কলাকৌশল শেখানো হয়। পাশাপাশি প্রত্যেক অংশগ্রহণকারীকে স্থানীয়ভাবে সরবরাহ করা প্রাথমিক চিকিৎসার সামগ্রীও দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানের মূল প্রশিক্ষক আমেরিকান সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন চার্লস রায়ান সিলভেরিয়া জানান, বাংলাদেশের সঙ্গে আমেরিকার কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে নানা ধরনের সহযোগিতা করা হচ্ছে।

আমেরিকার সরকার চায় প্রযুক্তির সর্বোচ্চ সদ্ব্যবহারে বাংলাদেশ আরো এগিয়ে যাক। এরই অংশ হিসেবে বাংলাদেশের ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের বিশ্বমানের প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে।

প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারীরা মাস্টার ট্রেইনার হিসেবে অন্যদেরও প্রশিক্ষণ দেবেন। ফলে সারা দেশেরই ফায়ার সার্ভিসকর্মীদের মধ্যে এই প্রশিক্ষণ ছড়িয়ে পড়বে। এ ধরনের উদ্যোগের ফলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক সুরক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের রাজশাহী বিভাগীয় উপ-পরিচালক আবদুর রশিদ জানান, ফায়ার সার্ভিসে এ ধরনের উন্নত প্রশিক্ষণ এবারই প্রথম। এর ফলে ফায়ারকর্মীরা নিজেদের দক্ষতা দিয়ে যে কোনো দুর্যোগকালীন পরিস্থিতিতে সর্বোচ্চ সেবা দিতে পারবে।  তাদের মনোবল আরো চাঙ্গা হবে। এতে সাধারণ মানুষ সুফল পাবে।

২০১৪ সালে প্রোগ্রামটি শুরু হওয়ার পর থেকে বাংলাদেশে ৬০০ জনকে মাস্টার ট্রেইনার হিসেবে প্রশিক্ষণ দিয়েছে মার্কিন দূতাবাস।