রাজনীতি ১ ডিসেম্বর, ২০২০ ০৩:১০

‘স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষে করোনার টিকা বিতরণ সম্ভব নয়’

সংগৃহীত ছবি

সংগৃহীত ছবি

ডেস্ক রিপোর্ট

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির স্থায়ী কমিটি কোভিড-১৯ টিকা সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও বিতরণের দায়িত্ব সেনাবাহিনীকে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে। তারা মনে করেন, বর্তমান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও সংশ্লিষ্ট দপ্তরের পক্ষে এই ব্যাপক কর্মযজ্ঞ সুষ্ঠুভাবে পালন করা সম্ভব নয়। তাই এই কাজে সশস্ত্র বাহিনীসহ সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোকে দায়িত্ব দেওয়া উচিত।

রবিবার বিএনপির স্থায়ী কমিটির ভার্চ্যুয়াল বৈঠকের পর সোমবার বিএনপির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে গতকালকের বৈঠকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অযোগ্যতার কারণে জীবন রক্ষাকারী ভ্যাকসিন সংগ্রহ কার্যক্রম ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটি মনে করে ভ্যাকসিন সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও বিতরণের বাস্তবসম্মত পরিকল্পনা গ্রহণ করতে না পারলে জনগণ উপকৃত হবে না। বরং ব্যাপক দুর্নীতির সুযোগ সৃষ্টি করবে। প্রায় ১৬ কোটি মানুষের জন্য ৩২ কোটি ভ্যাকসিনের ডোজ প্রয়োজন হবে।

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন ইতিমধ্যেই কয়েকটি দেশে চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছেছে। অনেক দেশের সরকার ভ্যাকসিন সংগ্রহের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে শুরু করেছে।

এ অবস্থায় বিএনপির স্থায়ী কমিটি টিকা সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও বিতরণের পুরো পরিকল্পনা জনগণের সামনে উপস্থাপন করতে সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, গতকালকের বৈঠকে বিএনপির স্থায়ী কমিটি রাজধানীতে কয়েকটি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাকে ‘রহস্যজনক’ আখ্যায়িত করে এর বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করেছে। একই সঙ্গে আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর যথাযথ ক্ষতিপূরণ ও পুনর্বাসনের দাবিও জানানো হয়।