সোশ্যাল মিডিয়া ২৫ আগস্ট, ২০১৯ ০২:৩০

কোহিনূর প্রধান-এর 'নিয়তি'

লেখক, সাংবাদিক ও ব্যাবসায়ী কোহিনূর প্রধান। তিনি তার ফেসবুক টাইমলাইনে একটি কবিতা লিখেছেন। পাঠকদের জন্য দৈনিক আমাদের কাগজ তার কবিতাটি প্রকাশ করছে- 

জানিনা, আজ আমি অপেক্ষাকৃত ও নই,
কারন টা জানলে চমকে উঠার মতোই।
আজ আমি তোমার আমার সকল চিত্ত প্রায় ভুলেই গিয়েছি,
তার কারন টা কি জানলে তুমি চমকে উঠবে ।
শিহরে উঠবে তোমার গোটা শরীল।

বলতে চাই না আমি ছাড়ো তো ওসব কথা,
আঘাত পেয়েছি একা আমিই তোমায় না দিয়ে ব্যথা।
আমি জানি এ ব্যথা কতোটা নির্মম,
জানি বলেই একাই চলছি নিয়ে এ জীবন।

জানি বলেই আজ হয়ে গেছি নিশ্চুপ,
আহ ভেবোনা আমি তোমার উপর কোন অভিমান করিনি।
অভিমান্য হাসির ছাপ কখনো আমার চেহারায় খুঁজতে যেওনা,
মানা করেছি তোমায় বিশারদ ছাড়া কিছুই পাবেনা।

ছাড়ো না ওসব কথা আচ্ছা বলো তুমি কেমন আছো, 
আগের মতো পাগলামো কি এখনো আছে তোমার মাঝে।
যাই হোক তোমার চোখের কোনায় জল পড়া বন্ধ হয়েছে তো, 
যেটা একসময় আমার জন্য গড়িয়ে পড়তো।

দেখো ত কতোটা পাগলি আমি, কিসব আজেবাজে প্রশ্ন করছি,
তাছাড়া আর করবোই টা কি বুকে ত আর যেতে পারবোনা কখনওই তাইনা।
তুমি মনে কিছু নিওনা আমি এখন কখনই কাধিনা,
কার জন্যই বা কাঁধবো বলো তুমি ত আমাকে ছাড়া বেশ সুখেই আছো।

জানো মাঝেমাঝে খুব ইচ্ছে করে তোমার চোখে চোখ রাখার জন্য,
কিন্তু কখনই সাহস হয়না যদি আবার আগের মতো। তোমাকে কাছে পাওয়ার ইচ্ছে জাগে,
তখন তো আরো বেশি কষ্ট পাবো তাই থেমে যাই।

ভেবোনা আমি রাগান্বিত তোমার উপড়ে,
আমি তো তোমার ভালোবাসা টাকে বাচিয়ে রেখেছি মাত্র।
তুমি যাতে কোন আঘাতে নিজেকে শেষ না করে দাও,
তার জন্য আমার সবটুকুই ত্যাগ করে তোমার জন্য সুখ কিনে দিলাম।

চিন্তা করোনা আমি তোমায় কোন দয়া দেখাইনি,
আমি তো শুধু আমার ভালোবাসাকে সন্মান দিয়েছি মাত্র।
তাছাড়া আমি তো কেবল আর কয়টা দিনের অতিথি হয়ে আছি তোমাদের মাঝে,
হয়তো কোন ভোরের সকালেই চিরনিদ্রায় যেতে হবে আমাকে।

ভেবোনা তোমায় কষ্ট দেবার জন্য আমি কিছু করেছি,
আমি ত নিয়তির কাছে হেরে গিয়েছি যেটা তোমাদের কখনওই বুঝতে দেইনি।
আর বুঝতে দিলেই বা কি হতো বলো আমায় কি আটকাতে পারতে,
নিয়তি যে বড্ড বেমানান তাকে কি পাড়তে রুখতে।

তাইতো নিজের ভেলায় করেছি সব পাড় তোমার সুখ কিনে দিয়ে,
আমায় বোকা ভেবোনা,আমার উপড় রাগ ও রেখোনা।
আমার সব সুখ তোমার মাঝেই যে বিচরণস্থল,
নিয়তি হয়তো কেড়ে নিয়েছে আমায় কিন্তু বিশ্বাস করো।

কখনওই যে নিয়তির নির্মম খেলার কথা তোমায়, জানানোর সাহস পাইনি কারন কি জানো।
তুমি কষ্ট পাবে বলে । তুমি কাধবে বলে, 
আর তোমার কান্না দেখার জন্য কখনই প্রস্তুত ছিলাম না। 
যার জন্য নিয়তির নির্মমতায় হেরে গেলাম আমি।