অর্থ ও বাণিজ্য ৩০ অক্টোবর, ২০২০ ০১:৫২

হিলি স্থলবন্দরে কমেছে কাঁচামরিচের দাম

ডেস্ক রিপোর্ট

একদিনের ব্যবধানে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে কাঁচামরিচের দাম কেজিতে ৪০ টাকা কমেছে। গতকাল যে কাঁচামরিচ বিক্রি হয়েছে ১৫০ থেকে ১৬০ টাকা কেজি দরে। আজ তা খুচরা বাজারে বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকা কেজি দরে। শুক্রবার সকালে হিলি বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

দেশি কাঁচামরিচের উৎপাদন বৃদ্ধি ও ভারত থেকে আমদানি হওয়ার কারণে কাঁচামরিচের কমেছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। সরেজমিনে দেখা গেছে, একদিনের ব্যবধানে কমেছে কাঁচামরিচের দাম কেজিতে ৪০ টাকা। গতকাল সবজি বাজারে কাঁচামরিচ পাইকারি বিক্রি হয়েছে ১৪০ টাকা,তা আবার খুচরা বাজারে বিক্রি হয়েছে ১৫০ থেকে ১৬০ টাকা কেজি দরে। আজ দাম কমে তা পাইকারি বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১১০ টাকা কেজি দরে, খুচরা বাজারে তা বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকা দামে।

এদিকে, বাজারের পাইকারি ব্যবসায়ীরা আমদানিকারকদের নিকট থেকে তা ক্রয় করছেন কেজি প্রতি ৯০ থেকে ৯৫ টাকা কেজি দরে।

হিলি বাজারের সবজি ব্যবসয়ী আব্দুল লতিফ রাইজিংবিডিকে জানান, গতকালের চেয়ে আজ কাঁচামরিচের দাম অনেক কমে গেছে। গতকাল ১৪০ টাকা পাইকারি কিনে, বিক্রি করেছি ১৫০ থেকে ১৬০ কেজি দরে। আজ তা ১০০ থেকে ১১০ টাকা কিনে এখন বিক্রি করেছি ১২০ টাকা দরে।

দিনমজুর রফিকুল ইসলাম জানান, আজ বাজার খরচ করতে এসে দেখি মরিচের দাম অনেকটা কমে গেছে। গত পরশু দিন কাঁচামরিচ কিনেছিলাম ১৬০ টাকা দরে। আজ তা কিনলাম  ১২০ টাকা দরে। হঠাৎ দাম কমায় স্বস্তি পাচ্ছি।

বাজারের পাইকারি কাঁচামরিচ ব্যবসায়ী দেলোয়ার হোসেন জানান, হঠাৎ বাজারে মরিচের দাম কমে গেছে। আমরা আমদানিকারকদের নিকট ৯০ থেকে ৯৫ টাকা ক্রয় করছি। পাইকারি বিক্রি করেছি ১০০ থেকে ১১০ টাকা কেজি দরে।

হিলি স্থলবন্দরের কাঁচামরিচ আমদানিকারক সাইফুল ইসলাম জানান, দুর্গাপূজা উপলক্ষে টানা ৬ দিন ভারত থেকে আমদানি বন্ধ থাকায় মরিচের দাম অনেকটায় বৃদ্ধি পেয়েছিল। দুইদিন ধরে কাঁচামরিচ আমদানি হওয়ায় এর দাম কমে গেছে। অন‌্যদিকে, দেশে কাঁচামরিচের উৎপাদন বাড়ার কারণেও বাজারে মরিচের দাম কমেছে।


আরো খবর

post
post

সূচকের সাথে বেড়েছে লেনদেন

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
post

সূচকে মিশ্র প্রবণতা

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
post

৪৪ বিলিয়ন ডলার ছাড়ালো রিজার্ভ

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
post
post